পেঁপের উপকারিতা
পেঁপের উপকারিতা   

পেঁপের উপকারিতা

পেঁপে আমরা সবাই চিনি । পেঁপে একটি পুষ্টিগুনসম্পন্ন সুস্বাদু ফল । পেঁপেতে রয়েছে অনেক রোগ নিরাময়ের ক্ষমতা । পেঁপেতে প্যাপিন নামের একটি উপাদান রয়েছে, যা আমাদের খাবার হজম করতে এবং পেট পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে । পেঁপে অনেক কম দামে পাওয়া যায়, তাই পেঁপের জনপ্রিয়তা অনেক । পেঁপে আমরা কম বেশি সবাই খাই | আমরা কি জানি পেঁপে খেলে কি কি উপকার হয় ? চলুন আজ জেনে নেই পেঁপের উপকারিতা কি কি -:

১. ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় এবং ব্রণের দাগ কমায়:-

পেঁপে আমাদের ত্বকের জন্য অনেক উপকারী। পেঁপে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে এবং ব্রণের দাগ কমাতে সাহায্য করে । পেঁপে একটি অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমৃদ্ধ ফল, আর আমরা সবাই জানি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ত্বকের লাবণ্য ও উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। পেঁপেতে রয়েছে প্যাপিন এবং ভিটামিন 'এ' যা আমাদের ত্বকের মৃত কোষগুলিকে ধ্বংস করতে সহায়তা করে। আর মৃত কোষগুলি ধ্বংস হয়ে গেলে ত্বকের দাগ ও দূর হয়ে যাবে | এছাড়া ব্রণের দাগ, মেছটা, পোড়া দাগ, কেটে যাওয়া দাগ ইত্যাদি কমাতে সাহায্য করে | আমরা যদি প্রতিদিন আমাদের ত্বকে পাঁকা পেঁপের সাথে টক দই এবং মধু মিলিয়ে লাগাই তাহলে আমাদের ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে | (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

২. হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে:-

পেঁপে আমাদের হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে । পেঁপেতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম । নিয়মিত পেঁপে খেলে শরীরে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম উৎপাদন হয় যা আমাদের হাড় মজবুত করে । এছাড়া আরো অনেক জটিল রোগ দূর করতে সহায়তা করে । (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

৩. হজমশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে:-

পেঁপে আমাদের হজমশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে। যাদের বদহজমের সমস্যা তারা পেঁপে খেতে পারেন । পেঁপেতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্যাপিন এনজাইম যা আমাদের পেটের খাবার দ্রুত হজম করতে সাহায্য করে । এছাড়া কোষ্ঠকাঠিন্যর সমস্যা থাকলে তাও দূর করে । যাদের মুখে রুচি নেই তারা পেঁপে খেতে পারেন । কারণ পেঁপে খেলে মুখের রুচি বাড়ে । (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

পেঁপের উপকারিতা
পেঁপের উপকারিতা


৪. ভিটামিন এর অভাব পূরন করে:-

পেঁপেতে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন রয়েছে যেমন - ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, ভিটামিন বি-১, ভিটামিন বি-৬ । এগুলো আমাদের শরীরের ভিটামিন এর চাহিদা পূরণ করে । তাই আমাদের প্রতিদিন পেঁপে খাওয়া । (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

৫. কোলেস্টেরল হ্রাস করতে সাহায্য করে:-

পেঁপে শরীরের কোলেস্টেরল হ্রাস করতে সাহায্য করে । পেঁপেতে কোনো কোলেস্টেরল নেই । পেঁপেতে বিভিন্ন ধরনের উপাদান রয়েছে যেমন- ভিটামিন সি, ফাইবার,অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ইত্যাদি । যা আমাদের শরীরে কোলেস্টেরল জমতে বাঁধা প্রদান করে । শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ বেশি হয়ে গেলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। তাই আমরা প্রতিদিন পেঁপে খাব এতে আমাদের শরীরের কোলেস্টেরল পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে থাকবে । (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

৬. চোখ ভালো রাখতে এবং দৃষ্টিশক্তি রক্ষা করতে সাহায্য করে :-

পেঁপে আমাদের চোখ ভালো রাখতে এবং দৃষ্টিশক্তি রক্ষা করতে সহায়তা করে । পেঁপেতে একটি উপাদান আছে যার নাম ক্যারোটিনাইডস । এই ক্যারোটিনাইডস আমাদের চোখের জন্য খুব উপকারী। পেঁপেতে আরো কিছু উপাদান রয়েছে যেমন - বেটা ক্যারোটিন, জিয়াক্সনাথিন ও লুটেইনের ইত্যাদি । এই উপাদান গুলো চোখের মিউকাস মেমব্রেনকে সবল করে এবং চোখকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে । চোখ ভালো রাখতে আমাদের প্রতিদিন পেঁপে খাওয়া উচিত । (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

৭. উচ্চরক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে:-

সাধারণত মানুষের বয়স ৪৫-৫০ হলেই উচ্চরক্তচাপ এর সমস্যা দেখা দেয় । কাঁচা পেঁপে খেলে উচ্চরক্তচাপ এর সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায় । তাই যাদের উচ্চরক্তচাপ এর সমস্যা রয়েছে তারা নিয়মিত কাঁচা পেঁপে খাবেন, তবে বেশি নয় কয়েক টুকরো । অনেকেরি হৃদপিণ্ডের রোগ রয়েছে । পেঁপে খেলে এই হৃদপিণ্ডের রোগ থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)


পেঁপের উপকারিতা
পেঁপের উপকারিতা

৮. ক্যান্সার এর ঝুঁকি কমায়:-

পেঁপে ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে । পেঁপেতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফ্ল্যাভোনোক্সিড বিটা কেরোটিন ইত্যাদি উপাদান । এগুলো আমাদের শরীরে ক্যান্সারের কোষ তৈরিতে বাঁধা দেয় এবং কোলন ক্যান্সার, প্রোসটেট ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে । (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

৯. ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে:-

পেঁপেতে চিনির পরিমাণ খুবই কম তাই এটি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী একটি ফল । যাদের ডায়াবেটিস নেই তারা নিয়মিত পেঁপে খেতে পারেন এতে ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকি কমে যাবে । কারণ পেঁপেতে বিদ্যমান উপাদানগুলি ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে । (গর্ভবতী অবস্থায় ডাক্টার এর পরামর্শ ছাড়া পেঁপে না খাওয়াই ভালো)

এছাড়াও পেঁপে আরো অনেক রোগ নিরাময় করতে সাহায্য করে যেমন -  শ্বাস- প্রশ্বাসের সমস্যা, স্ট্রেস এর সমস্যা, যকৃত এর সমস্যা, কৃমির সমস্যা ইত্যাদি । তাই প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় অবশ্যই পেঁপে রাখুন। 


পেঁপের উপকারিতা


Photo Credit - doschooling.com (my own capture)

Post a Comment

Previous Post Next Post